Thursday , June 21 2018
Breaking News

২০ মিনিটে ২০ খতম আল-কুরআনের সওয়াব লাভ করার আমল

নিজে জানুন আমল করুন অপরকে জানান। এতে যদি ১ থেকে হাজার মানুষ পর্যন্তও ছড়ায় আর তা শিক্ষা গ্রহন করে আপনার দ্বারা উপকার প্রাপ্তদের সকলের সওয়াব আপনার আমলনামায় দেয়া হবে ইনশা-আল্লাহ।

★ সুরা ফাতিহা ৩ বার পড়লে আল-কুরআন ২ বার খতমের সওয়াব হয়। (তফসীরে মাযহারী ১ম, পৃ ১৫) ★ সুরা ইখলাস ৩ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়।(সহিহ বুখারী ২য়, পৃ ৬৫০) ★ সুরা ইয়াসিন ১ বার পড়লে ১০ খতম এর সওয়াব হয়। (সহিহ তিরমিযি ২য়, পৃ ১১৬) ★ সুরা কাফিরুন ৪ বার পড়লে খতমের সওয়াব হয়। (সহিহ তিরমিযি ২য়, পৃ ১১৭) ★ সুরা যিলযাল ২ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (সহিহ তিরমিযি ২য়, পৃ ১১৭)

★ সুরা ক্বদর ৪ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (দুররে মনসুর ৬ষ্ট, পৃ ৬৮০) ★ আয়তুল কুরসী ৪ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (তফসীরে মাযহারী ২য় খন্ড, পৃ ৩১) ★ সুরা নসর ৪ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (সহিহ তিরমিযি ২য়, পৃ ১১৭) ★ সুরা আদিয়াত ২ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (দুররে মনসুর ৬ষ্ট, পৃ ৬৯৫) ★ সুরা তাকাসুর ১ বার পাঠ করলে ১০০০ আয়াত পাঠের সমান সওয়াব হয়। (বায়হাকী, মিশকাত ১ম, পৃ ১৯০) ★ ২০ লক্ষ নেকীর দোয়া :-

” লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা-শারিকা’লাহু আহাদান সামাদান লাম ইয়ালিদ ওয়া লাম ইউ লাদ ওয়া লাম ইয়া কুল্লাহু কুফুয়ান আহাদ ”

পরিশেষে, রাসুল (সা) বলেন, “যে ব্যক্তি ইসলাম ধর্মে কোনো সুন্নাতুন্ হাসানা তথা উত্তম প্রথা/রীতি প্রবর্তন করেন, তিনি এর সওয়াব পান এবং যারা তার পরে ওতে আমল করবে, তাদের সওয়াবও তিনি পেতে থাকেন; আর তাদের (পরবর্তী আমলকারীদের) সওয়াবেরও এতে ন্যূনতম কমতি হয় না। অনুরূপ ভাবে কেউ যদি ধর্মে খারাপ কিছু সংযোজন করে আর কেউ তা অনুসরণ করে, সে ওই মন্দের জন্য দায়ী থাকবে।” [সাহীহ মুসলিম> ৬৪৬৬]

রাসূল সাঃ ইরশাদ করেন-আমার পক্ষ থেকে একটি বাণী হলেও [মানুষের কাছে] পৌঁছে দাও। *তাহাবী শরীফ, হাদীস নং-৫৫৭০, *সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৩২৭৪, *সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং-৬২৫৬, *সুনানে তিরমিযী, হাদীস নং-২৬৬৯

Facebook Comments