Thursday , June 21 2018
Breaking News

আসছে ২০০ কি.মি. গতির ট্রেন, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হবে মাত্র দুই ঘন্টার পথ

এদিনে রেলভবনে এ চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে স্বাক্ষর করেন সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালক মোঃ কামরুল আহসান এবং কনসালটেন্সির পক্ষে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ডিপার্টমেন্ট বিজনেস ম্যানেজার লিও উইচাও।

চুক্তি অনুযায়ী ১৮ মাসের মধ্যে সম্ভাব্যতা সমীক্ষা এবং ডিটেইলড ডিজাইন কাজ শেষ হবে। বাংলাদেশী টাকায় ১০২ কোটি ১০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৩০ টাকা চুক্তি মূল্য । সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে কনসালটেন্সি সার্ভিসের কাজ করা হচ্ছে।

রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বর্তমানে এর দৈর্ঘ্য ৩২০ কিলোমিটার। প্রস্তাবিত রুট অনুযায়ী এর দৈর্ঘ্য ৯১ কি.মি. কমে হবে ২৩০ কি.মি.।

দিন দিন বাংলাদেশের সবর্ত রাস্তা ঘাট উন্নত হচ্ছে । তারি সঙ্গে দেশের রেলওয়ের ব্যবস্থা উন্নত করার লক্ষে ।বাংলাদেশ রেলওয়ের ঢাকা-চট্রগ্রাম ভায়া কুমিল্লা বা লাকসাম রুটে হাইস্পিড ট্রেন নির্মাণের উদ্দেশে সম্ভাব্যতা সমীক্ষা ও ডিজাইন নির্মাণের চুক্তি করেছে।

বৃহস্পতিবার স্বাক্ষরিত এ চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ রেলওয়ে, চায়না রেলওয়ে ডিজাইন কর্পোরেশন এবং মজুমদার এন্টার প্রাইজ (বাংলাদেশ) যৌথভাবে এ কাজ করবে বলে জানা গেছে।

রেলমন্ত্রী অরও বলেন, বর্তমান সরকার রেলখাতের উন্নয়নে অধিক গুরুত্ব দিয়েছে। ফলে নতুন নতুন প্রকল্প নেয়া হচ্ছে। এ সময় তিনি চলমান কয়েকটি প্রকল্পের কথাও উল্লেখ করেন।

তিনি জানান, ২০০ কি.মি. গতির ট্রেন চালানোর মাধ্যমে দেড় থেকে দুই ঘন্টায় ঢাকা-চট্রগ্রাম আসা যাওয়া করা যাবে। এতে করে দ্রুত যাত্রী ও পণ্য পরিবহন করা সম্ভব হবে। দেশের অর্থনীতির উন্নয়নে এই ট্রেন সার্ভিস গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে মন্ত্রী মনে করেন।

এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন, মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন, কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এটি দেশের জন্য বড় একটি অর্জন।

একাজ সফল হলে সেদিন আর বেশি দুরে নয়, যখন মাত্র দেড় থেকে দুই ঘন্টায় যাওয়া যাবে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে। এ ট্রেন ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার বেগে চলবে।

Facebook Comments