Wednesday , December 19 2018

‘বড় মেয়ে ফোন দিলে বকা দেয় আলম’

বড় মেয়ে ফোন- অভিনেত্রী শ্রাবন্তীকে গত ৭ই মে তার স্বামী মোহাম্মদ খোরশেদ আলম তালাকের নোটিশ পাঠায়। ২৫শে জুলাই দুই পক্ষের উপস্থিতিতে ঢাকার পারিবারিক আদালতের দ্বিতীয় অতিরিক্ত সহকারী জজ ইশরাত জাহান পারিবারিক মোকদ্দমা নিষ্পত্তি না হওয়া সেই তালাকের নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করেছেন। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত তার স্বামী মোহাম্মদ খোরশেদ আলম কিংবা তার পরিবারের কেউ শ্রাবন্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করেনি বলে জানান তিনি।

শ্রাবন্তী বলেন, একটি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য দু’জন মানুষের মানসিক প্রস্তুতির প্রয়োজন। আমি আমার সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে সেই প্রস্তুতি নিয়ে আছি। এখন যদি আলমের কোনো সমস্যা না থাকে।তার যদি অন্য কারো সঙ্গে সম্পর্ক না থাকে তাহলে অবশ্যই সন্তানদের দিকে চেয়ে সে আবার ফিরে আসবে। তার সিদ্ধান্তের ওপর সব নির্ভর করছে। দু’জনেই আমরা বিভিন্ন ভাবে দু’জনের কথায় অসম্মানিত হয়েছি এটি সত্যি। কিন্তু সব কিছুর ঊর্ধ্বে এখন আমাদের সন্তান। সন্তানদের জন্য হলেও আমাদের এক সঙ্গে থাকতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমি জানি আমার সন্তানরা কি চায়। তারা তাদের বাবা-মাকে একসঙ্গে দেখার জন্য সব সময় উন্মুখ হয়ে থাকে। আমার বড় মেয়ে প্রায় সময় তার বাবাকে ফোন দেয়। আলম মেয়েকে বকাঝোকা দেয়। আলম একাধারে একজন শিক্ষক এবং বাবা। সে অবশ্যই সন্তানদের মনের অবস্থা বোঝে। তারপরেও যদি সে ভিন্ন পথে হাঁটে তাহলে আমার কিছু করার নেই।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ২৯শে অক্টোবর শ্রাবন্তীর সঙ্গে বিয়ে হয় মোহাম্মদ খোরশেদ আলমের। এই দম্পতির দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বড় মেয়ে রাবিয়া আলমের বয়স ৭ আর ছোট মেয়ে আরিশা আলমের সাড়ে ৩ বছর। শ্রাবন্তী দীর্ঘদিন যাবৎ যুক্তরাষ্ট্রবাসী। গত ২৫শে জুন তিনি দেশে ফিরেছেন।

Facebook Comments