Thursday , June 21 2018
Breaking News

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নে তলে তলে ‘বিকল্প দলে’ প্রণব মুখার্জি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ‘গোপন’ স্বপ্ন পূরণে তলে তলে ‘বিকল্প দল’ গড়ছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি ও প্রবীণ কংগ্রেস নেতা প্রণব মুখার্জি।

২০১৯ সালের সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে কংগ্রেসও নয়, আবার বিজেপিও নয় এমন নেতাদের নিয়ে ‘থার্ড পার্টি’ গড়ছেন ৮২ বছর বয়সী এ রাজনীতিক। রাজনীতি থেকে এক রকম অবসর নিলেও আগামী মাসে মৌলবাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবকের (আরএসএস) এক সভায় বক্তব্য প্রদানের আমন্ত্রণ গ্রহণের পরই তার সম্পর্কে পুরনো এ গুঞ্জন নতুন করে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে।

নিজের বিদগ্ধ স্বপ্ন পূরণে এখনও নিরন্তর ছুটছেন পাঁচ দশক ধরে কংগ্রেসের রাজনীতি করা প্রণব। তার দলের নেতারাই তার এ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সরব হয়ে উঠেছে। দলের সবচেয়ে প্রবীণ নেতা ও একজন অবসরপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতির এমন পদক্ষেপে তারা অবাকও বটে।

কংগ্রেস, বিজেপি, তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেডির বেশ কিছুসংখ্যক রাজনীতিকের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এনডিটিভি জানিয়েছে, ২০১৯ সালের সাধারণ নির্বাচনে নতুন দল থেকে প্রধানমন্ত্রী পদে লড়তে পারেন প্রণব।

এ লক্ষ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়িয়েছেন তিনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিজেডির এক সংসদ সদস্য বলেন, ‘তিনি (প্রণব) একজন তুখোড় রাজনীতিক এবং সম্ভবত তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তুলনীয়। এখন তিনি ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের (এনডিএ) বাইরে একটি অবস্থান তৈরির জন্য খোলাখুলিই কাজ করছেন।’

নতুন দলের কথা মাথায় রেখেই চলতি বছরের জানুয়ারিতে উড়িষ্যার রাজধানী ভুবনেশ্বরে লালকৃষ্ণ আদভানিসহ মুখ্যমন্ত্রী নবীন পাটনায়েকের বাড়িতে একটি বৈঠক করেন প্রণব। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গেও বৈঠক করেছেন তিনি।

কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ ও যোগ্য নেতা হিসেবে ১৯৮৪ সালে আততায়ীর হাতে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী নিহত হওয়ার পর প্রথমবারের জন্য প্রণবের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

অনেকেই বলেন, সে সময় রাজীব গান্ধী দলের নেতাদের কাছে প্রশ্ন রেখেছিলেন, তার মায়ের মৃত্যুর পর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে যোগ্য ব্যক্তি কে। সে সময় প্রণব নিজের নামই প্রস্তাব করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। এর দীর্ঘদিন পর ২০০৪ সালে আবারও তার জন্য প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা না হওয়ায় নিজের অসন্তোষের সে কথা নিজের জীবনী গ্রন্থ ‘দ্য কোয়ালিশন ইয়ার্স’-এ লিখেছেন তিনি।এনডিটিভি
এমটিনিউজ২৪.কম/টিটি/পিএস

Facebook Comments