Thursday , June 21 2018
Breaking News

মাহাথির মোহাম্মদকে প্রাণনাশের হুমকি

সোশ্যাল মিডিয়ায় মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী ড. তুন মাহাথির মোহাম্মদকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ৩৮ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল তান সেরি মোহাম্মদ ফুজি হারুন এই তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত শনিবার বিকেল ৪টার দিকে আম্পাঙ্গের বেভারলি হাইটস থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি সম্বলিত পোস্টটি ইতোমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে।

তবে সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি দাবি করেছেন যে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছিল।সন্দেহভাজনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল জানান।

ড. মাহাথির মোহাম্মদ বলেছিলেন, মালয়েশিয়ার হারানো গৌরব পুনরুদ্ধারের জন্য প্রচেষ্টা শুরু করে দিয়েছি। মালয়েশিয়াকে আবারো ‘গণতান্ত্রিক’ অবস্থায় ফিরিয়ে আনার জন্য আমি আমার প্রচেষ্টা শুরু করে দিয়েছি। খু্ব শিগগিরই আমি ৯৩ বয়সে পা রাখব। অল্প যে সময় টুকু আমি পাব এর মধ্যে যতটুকু সম্ভব সমাধানের চেষ্টা করব।

মাহাথির তার সাবেক ডেপুটি আনোয়ার ইব্রাহিম সম্পর্কে ড. মাহাথির বলেছিলেন, ‘আমি মনে করি তিনি বর্তমানে সম্পূর্ণ ভিন্ন একজন ব্যক্তি। আমি মনে করি তিনি উপলব্ধি করছেন যে সবসময় কোনো কিছু কারো চাওয়া অনুযায়ী সম্ভব হয় না। তাই তাকে আরো বেশি ধৈর্যশীল হবে।’

জনগণের কাছ থেকে চাঁদা তুলে বৈদেশিক ঋণ শোধ করছে মাহাথির!

চাঁদা তুলে মালয়েশিয়ার ঋণ শোধ করছে সেখানকার জনগণ। দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের ডাকে সাড়া দিয়ে এ কাজে শামিল হলেন তারা। মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ২০ লাখ ডলার গণতহবিল গঠিত হয়েছে বলে জানা গেছে।

বৈদেশিক ঋণ শোধে ২৭ বছর বয়সী এক মালয়েশীয় দেশপ্রেমিক নাগরিকের হাত ধরে মালয়েশিয়া সরকারের এ উদ্যোগ শুরু হয়। প্রথমে ব্যক্তিগত উদ্যোগে তহবিল গঠন শুরু করেন সেই ব্যক্তি।

এরপরই দেশটির অর্থমন্ত্রী লিম গুয়ান ইং বলেন, মালয়েশিয়ার বৈদেশিক ঋণের বোঝা কমাতে দেশের নাগরিকেরা তাদের আয় থেকে অর্থ দিতে চায়। এরপর গণতহবিল গঠনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন তিনি।

১ ট্রিলিয়ন রিঙ্গিতেরও বেশি ঋণ রয়েছে মালয়েশিয়ার। দায়িত্ব নেওয়ার প্রায় এক সপ্তাহ পর গত ২১ মে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রথমবার আলোচনায় এ তথ্য জানান মাহাথির মোহাম্মদ।

দেশের এ অবস্থার জন্য দুর্নীতি মামলায় তদন্তাধীন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের নেতৃত্বে থাকা প্রশাসনকে দায়ি করেছেন তিনি। যাইহোক, বৈদেশিক ঋণ শোধে মালয়েশিয়ার এ ‘গণতহবিল মডেল’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে।

মাহাথির মোহাম্মদ আসলেই অনন্য, আসলেই অসাধারণ। ড. মাহাথির বিন মোহাম্মদ ৯২ বছর বয়সেও ভীষণ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সরকারি দায়িত্ব নিয়ে। এতে যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু ঘুম না হওয়ায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন বলে উদ্বিগ্ন তার স্ত্রী ড. সিতি হাসমাহ।

ড. সিতি ফেসবুকে এক পোস্টে লিখেছেন, মাহাথির যখন ঘুমাতে যাওয়ার কথা সে সময়ও তিনি সরকারি ডকুমেন্ট নিয়ে বসে থাকছেন। এক রাতে তাকে আমি ভোর ৪/৫টা পর্যন্ত এমন ডকুমেন্ট যাচাই করতে দেখেছি। তিনি ওই রাতে ২০০ ডকুমেন্ট যাচাই করেছেন। আবার সকাল ৭টায় তিনি অফিসে গিয়ে হাজির। এ জন্য তার স্বাস্থ্য নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।

কর্মব্যস্ত থাকতে পারেন বলেই মাহাথির অনন্য। কাজে ডুবে থাকেন বলে তার স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে স্বজনেরা দুশ্চিন্তা করেন। টাইম ম্যাগাজিন একবার তার অফিসে আসার সময় রেকর্ড করেছিল। পরপর পাঁচ দিন তার অফিসে প্রবেশের সময় ছিল সকাল ৭:৫৭, ৭:৫৬, ৭:৫৭, ৭:৫৯, ৭:৫৭। কর্মব্যস্ত মাহাথিরের জীবনের স‍ার্থকতা তিনি দেশ ও জাতিকে কিছু দিতে পেরেছেন; অর্থবহ কাজে ব্যস্ত থেকে সময়কে কাজে লাগাতে পেরেই তিনি সুখী।

মাহাথির বলেছেন- আমাদের ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করতে হবে। পেছনের আবর্জনা ঘাঁটার সময় আমাদের হাতে নেই। আমি কোনো প্রতিশোধ নিতে চাই না। জনগণকে নির্যাতন করার জন্য তৈরি করা কোনো আইন রাখা হবে না। আমরা সংবিধান সমুন্নত রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করতে চাই। আইনের শাসনমতে দেশ চালাতে চাই।

তিনি আরো বলেছেন- খান কম, অনুশীলন করুন বেশি, বই পড়ুন বেশি। প্রত্যেকের নিজ পরিবার একটি নিরাপদ জায়গা – যা আমাদের এই জটিল সমাজে স্থিরতা আনে। সঠিকভাবে ব্যাখ্যা করা হলে ধর্ম কখনো অর্থনৈতিক অগ্রগতির জন্য বাধা হতে পারে না। চিকিৎসা বিদ্যায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত লোকের জন্য রাজনীতি একটি ভালো পেশা। একজন ডাক্তার রোগীকে পর্যবেক্ষণ করেন, স্বাস্থ্যগত ইতিহাস রেকর্ড করেন, স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন, ল্যাব পরীক্ষা করেন এবং চূড়ান্তভাবে রোগ নির্ণয় করেন। এ প্রক্রিয়াটি রাজনীতির মতই।

Facebook Comments