Thursday , June 21 2018
Breaking News

কানাডার প্রাদেশিক এমপি নির্বাচিত বাংলাদেশের ডলি বেগম

প্রথমবারের মতো কানাডার প্রাদেশিক নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ডলি বেগম। তিনিই কানাডার ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশী এমপি। অন্টারিওর প্রাদেশিক নির্বাচনে স্কারবরো সাউথইস্ট আসনে তিনি প্রার্থী হয়েছিলেন নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) থেকে।

ডলি বেগমের দল এনডিপি নির্বাচনে ৪০টি আসন পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। কনজারভেটিভ পার্টি ৭৪ সিট পেয়ে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ভোটে ডলি ১৪ হাজার ১৫০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। ৬৩টি কেন্দ্রের ফলাফলে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা প্রগ্রেসিভ কনজারভেটিভ পার্টির প্রতিনিধি গ্যারি এলিসের চেয়ে প্রায় ছয় হাজার ভোটে এগিয়ে থেকে জয় নিশ্চিত করেন ডলি। এ ছাড়া ১৫ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা লিবারেল দলীয় লরেঞ্জ বেরারদিনেত্তি এবার রয়েছেন তৃতীয় অবস্থানে।

ডলি বেগম ওই প্রদেশে নিজ দলের প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছিলেন। পাশাপাশি স্কারবরো হেলথ কোয়ালিশনের কো-চেয়ার এবং ওয়ার্ডেন উডস কমিউনিটি সেন্টারের ভাইস চেয়ারম্যান তিনি।

গত এপ্রিলে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান ডলি বেগম। একজন বাঙালির এই বিজয়ে উল্লসিত কানাডাপ্রবাসী বাঙালিরা। টরন্টোর বাঙালি অধ্যুষিত ডানফোরথ এলাকায় বেরিয়েছে বিজয় মিছিল। প্রবাসী বাংলাদেশীরা মনে করছেন ডলি বেগমের মধ্যেমে তারা তাদের দাবি-দাওয়া সরকারের কাছে আরো সহজে পৌছাতে পারবেন।

বাংলাদেশের মৌলভীবাজারের মেয়ে ডলি বেগম ১১ বছর বয়সে বাবা, মা ও ছোট ভাইয়ের সাথে কানাডায় চলে যান। ২০১২ সালে ডলি টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক এবং টরন্টো ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন থেকে ২০১৫ সালে উন্নয়ন প্রশাসনে স্নাতকোত্তর করেন তিনি।

Facebook Comments